কিডনির উন্নতি লক্ষ্য করা গেলেও শ্বাসনালীতে অস্ত্রোপচার করা লাগতে পারে সৌমিত্রের

বিনোদন

অনলাইন ডেস্কঃ সৌমিত্র চট্টোপাধ্যায়ের শারীরিক অবস্থার কিছুটা উন্নতি হয়েছে। শুক্রবার (৬ নভেম্বর) থেকে তার অবস্থার উন্নতি হয় এবং এদিন মধ্য রাতেই মেডিক্যাল বুলেটিনে জানানো হয়, অভিনেতার অ্যান্টিবায়োটিক ও অ্যান্টিফাঙ্গাল ওষুধ বন্ধের সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে। হাসপাতাল সূত্রে ভারতীয় সংবাদমাধ্যমের খবর, শরীরে নতুন কোনও সংক্রমণ দেখা না দেওয়ায় শনিবার (৭ নভেম্বর) থেকে অ্যান্টিবায়োটিক ওষুধের ডোজ বন্ধ করা হতে পারে। তবে থাকবেন ভেন্টিলেশন সাপোর্টেই।

৮৫ বছর বয়সী অভিনেতার শ্বাসনালীর জন্য ট্রাকিওস্টোমি করা হবে কি না, তা নিয়েও চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত নেওয়া হবে এই দুয়েক দিনের মধ্যেই। শ্বাসনালীর চিকিৎসার অন্যতম মাধ্যম ট্রাকিওস্টোমি টিউব। অস্ত্রোপচার করে শ্বাসনালীতে (ট্রাকিয়া) ট্রাকিওস্টোমি টিউব স্থাপন করা হয়ে থাকে। যাতে নাক-মুখের বদলে গলায় থাকা ওই টিউবের মুক্ত প্রান্তের মধ্য দিয়ে শ্বাসপ্রশ্বাস কার্য সম্পাদিত হয়।

 অভিনেতার তন্দ্রাছন্ন ভাব কিছুটা কেটেছে, কিডনিও আগের চেয়ে ভালোভাবে কাজ করছে। তাই আপাতত নিয়মিত ডায়ালিসিস প্রয়োজন পড়ছে না। অভিনেতার অবস্থার এই পরিবর্তন যথেষ্ট ইতিবাচক বলেই মনে করছেন চিকিৎসকরা।

তবে সুস্থ হতে দীর্ঘ চিকিৎসার প্রয়োজন তা পরিবারকে জানিয়ে দেওয়া হয়েছে। চিকিৎসকরা জানান, রক্তে হিমোগ্লোবিনের মাত্রা স্বাভাবিক, রক্তক্ষরণ বন্ধ হয়েছে।

সৌমিত্রের চিকিৎসার দায়িত্বে থাকা মেডিক্যাল বোর্ডের প্রধান অরিন্দম কর জানান, ‘শারীরিক অবস্থার খানিক উন্নতি হয়েছে। আগের চেয়ে সচেতনতা বেড়েছে তার। স্বাভাবিকভাবে চোখ খুলছেন। মূত্রত্যাগ করছেন প্রত্যাশা মতোই। কিডনি সম্পূর্ণ স্বাভাবিক হয়ে উঠবে বলে আশা করা যাচ্ছে। ইনফেকশন আগের চেয়ে ভালো অবস্থায় আছে। শরীরে জ্বর নেই। অ্যান্টিবায়োটিক বন্ধ করে দেওয়া হবে। অ্যানিমিয়াও স্থিতিশীল। লিভারের কার্যক্ষমতাও ঠিকঠাক। এটা বলতে পারি, গত ৭ দিনের চেয়ে তার শারীরিক অবস্থার ভালোই উন্নতি হয়েছে। ’

Spread the love

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *